সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৯:৫২ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদঃ
করোনা সংক্রমণ রোধে আতঙ্ক নয়, গণ সচেতনতাই উত্তম...নিরাপদ দুরত্বে পথ চলুন, খাবারের আগে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে নিন.. নাক, মুখে হাত দেওয়া থেকে বিরত থাকুন...সবচেয়ে ভালো বাড়ীতেই থাকুন... ধন্যবাদ সবাইকে।
সংবাদ শিরোনামঃ
রাজশাহীতে মেট্রোপলিটন পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিট‘র নতুন ভবনের উদ্বোধন রাজশাহী মহানগরীতে গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৬০ বোতল ফেন্সিডিলসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী আটক ধর্ষণের কথা ফাঁস হওয়ার ভয়ে বিধবা নারীকে হত্যায় অভিযুক্ত ২ আসামিকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতার নোয়াখালীর দ্বীপ হাতিয়ায় মা- মেয়ের লাশ উদ্ধার ধুনটে গোসাইবাড়ী ইউপি‘র নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও সদস্যদের দায়িত্ব গ্রহণ রংপুরে মনবতার সেবা করে চলেছে হিজড়া সংগঠনের সভাপতি রানা রংপুরে অপসাংবাদিকতা ও মানবাধিকারের আড়ালে মাদক ব্যবসা- এলাকাবাসীর সংবাদ সন্মেলন গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে হোটেল ব্যবসায়ী পিতার হত্যাকারী নিজ ছেলে সোহান লালমনিরহাটে যৌতুক ও বাল্যবিবাহ বিরোধী আলোচনা নড়াইলের লোহাগড়া ইউনিয়নে নির্বাচনোত্তর সহিংসতায় মহিলাসহ গুরুতর আহত ৩

বিদেশী টিভি চ্যানেল গুলোর সম্প্রচার বন্ধে দেশীয় দর্শকের প্রতিক্রিয়া

৭১সংবাদ২৪.কম- ডেক্সঃ
শেহরিন আবেদ নামের এক দর্শকের পছন্দ সব ধরণের খেলা। তিনি খেলার চ্যানেলগুলোই বেশি দেখেন। বাংলাদেশ সময় গভীর রাতে লা লিগা বা প্রিমিয়ার লীগের কোন খেলা মিস করেন না তিনি। চ্যানেল বন্ধ নিয়ে শেহরিন আবেদ বলছেন বিষয়টা দুঃখজনক। “লা লিগার ফ্যান আমি। কিন্তু অন্য খেলা গুলো দেখি, টপ ফাইভ লীগের খেলার খোঁজখবরও রাখি। সেক্ষেত্রে আমাদের জন্য অনেক দুর্ভাগ্যজনক যে চ্যানেলগুলো বন্ধ হয়ে গেছে।

ফেসবুকে ফুটবল দর্শকগণের কয়েকটা গ্রুপ আছে। সেখানে অনেকে হতাশা প্রকাশ করছে। যারা আমরা খেলা দেখি সব রকম তাদের জন্য ব্যাপারটা সমস্যা হয়ে গেছে। বাংলাদেশে বিজ্ঞাপনসহ অনুষ্ঠান প্রচার করে- এমন সব বিদেশি চ্যানেলের সম্প্রচার পহেলা অক্টোবর থেকে বাংলাদেশে বন্ধ করে দিয়েছে কেবল অপারেটররা।

বিদেশি চ্যানেলগুলোতে বিজ্ঞাপন প্রচার বন্ধ করতে বলেছে বাংলাদেশ বিজ্ঞাপনসহ বিদেশি চ্যানেল বাংলাদেশে সম্প্রচার করা যাবে না- বাংলাদেশের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় থেকে এই নির্দেশ দেয়া হয়েছিল এসব চ্যানেলের দেশীয় পরিবেশকদের।
বাংলাদেশে বিদেশি টিভি চ্যানেল সম্প্রচার সংক্রান্ত যে পুরনো আইন বাস্তবায়ন করতে গিয়ে শুক্রবার থেকে দেশটিতে সব রকম বিদেশি টিভি চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ করে দেয়ায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছেন দেশটির বিভিন্ন টিভি দর্শক।

আইনটিতে বলা আছে- যে সমস্ত বিদেশি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন দেখানো হয়, সেসব চ্যানেল বাংলাদেশে প্রদর্শন করা যাবে না, এই নিয়ম কার্যকর করতে গিয়ে শুক্রবার বিবিসি-সিএনএনসহ সব আন্তর্জাতিক খবরের চ্যানেল, খেলার চ্যানেল এবং ভারতীয় বিনোদন চ্যানেলগুলোসহ সব বিদেশি চ্যানেলগুলো বন্ধ করে দেয় কেবল অপারেটররা, যা এখন পর্যন্ত বন্ধই রয়েছে। এদিকে সরকারের এই সিদ্ধান্তের পর ক্ষোভ এবং হতাশা প্রকাশ করছেন দর্শকরা। মাজমুয়া সুলতানা তাদের একজন।

তিনি বলেন- সারাদিন কাজের পর আমরা এক ঘণ্টায় দুইটা নাটক দেখি। এটাই বিনোদন। আমাদের সামনে বিকল্প ভালো কিছু আনতে হবে। আমরা সেটা দেখবো। এখন কোন কিছু বন্ধ করে দেয়া সমাধান হতে পারে না।

বাংলাদেশের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ডঃ হাছান মাহমুদ বলেছেন- বাংলাদেশের আইনে অনুযায়ী বিদেশি বিজ্ঞাপন প্রচার করা যাবে না। একই সঙ্গে বিদেশি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন দেখানোর কারণে কয়েক হাজার কোটি টাকা বিদেশি চ্যানেলের কাছে যাচ্ছে বলে তিনি মন্তব্য করেন। এদিকে চ্যানেল বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে এই নিয়ে নানা মন্তব্য চলছে। অনেকে স্বাগত জানালেও, বাংলাদেশের চ্যানেলের অনুষ্ঠানের মান এবং বিষয়বস্তু যে তাদের বিনোদনের চাহিদা মেটাতে পারে না সেটাও উল্লেখ করছেন অনেকে।

গণমাধ্যম বিশ্লেষণে অনেকে বলছেন সরকার বিদেশী চ্যানেলে বিজ্ঞাপন ছাড়া অনুষ্ঠান বা ক্লিন ফিডের যে দাবি জানানো হয়েছে তা পেতে হলে অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে। বে-সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইউ-ল্যাবের শিক্ষক অধ্যাপক সুমন রহমান এর কারণ ব্যাখ্যা করছেন। বিজ্ঞাপন গুলো বিদেশি চ্যানেল না পেলে সেটা যে লোকাল টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিতে চলে আসবে বিষয়টা এত সহজ নয়। কারণ লোকাল টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিকে সেই পরিমাণ সচেতন হতে হবে তবে হয়তো সম্ভব হবে।

তিনি বলেন- এতযুগ বিদেশি চ্যানেল গুলো যে প্রোগ্রাম বানিয়েছেন সেই প্রোগ্রাম গুলো বানাতে হবে দেশীয় টিভি প্রোগ্রামারদের বানাতে হবে। এটা বানানোর সক্ষমতা যখন তারা অর্জন করবে তখনই কেবল বিজ্ঞাপন গুলো সেখানে যাবে। দ্যাটস এ লং ওয়ে টু গো। এখানে অনেক গুলো যদি এবং কিন্তু আছে। ফলে এখনি চ্যানেলগুলো বন্ধ করে ফেলার ফলে রাতারাতি লাভবান হয়ে যাবো এটা ভাবার কোন কারণ নেই।

এদিকে ক্যাবল অপারেটরদের এসোসিয়েশন বলছেন- সরকারের পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত চ্যানেল গুলো বন্ধই থাকবে। এসোসিয়েশনের নেতা আনোয়ার পারভেজ জানিয়েছেন শুক্রবার ভ্রাম্যমাণ অভিযান চালালেও শনিবার কোথাও মোবাইল কোর্ট অভিযান চালানো হচ্ছে না বলেও তিনি জানান।

সূত্রঃ বিবিসি বাংলা।

সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

আর্কাইভ

SatSunMonTueWedThuFri
15161718192021
22232425262728
293031    
       
  12345
2728     
       
    123
18192021222324
       
   1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031 
       
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930    
       
©  2019 copy right. All rights reserved © 71sangbad24.com ltd.
Design & Developed BY Hostitbd.Com