শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:০৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদঃ
করোনা সংক্রমণ রোধে আতঙ্ক নয়, গণ সচেতনতাই উত্তম...নিরাপদ দুরত্বে পথ চলুন, খাবারের আগে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে নিন.. নাক, মুখে হাত দেওয়া থেকে বিরত থাকুন...সবচেয়ে ভালো বাড়ীতেই থাকুন... ধন্যবাদ সবাইকে।

রংপুরে সহকারী কমিশনার ভূমি কর্তৃক নারী সাংবাদিক লাঞ্চিত

রবিন চৌধুরী রাসেল- রংপুর জেলা প্রতিনিধিঃ
রংপুরে সহকারী ভূমি কমিশনার কর্তৃক নারী সাংবাদিক লাঞ্চিত হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। রংপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কর্তৃক বিভাগীয় রিপোর্টার্স ইউনিটি মহিলা বিষয়ক সম্পাদিক শরিফা বেগম শিউলী সাংবাদিক লাঞ্চিত হওয়ায় বিভাগীয় রিপোর্টার্স ইউনিটি জেলা প্রশাসক বরাবর সুষ্ঠু তদন্ত ও ন্যায় বিচারের দাবিতে অভিযোগ করেন।

বুধবার ২৮শে সেপ্টেম্বর ২২ইং দুপুরের দিকে জেলা প্রশাসককে এ অভিযোগের কপি জমা দেওয়া হয়।সাংবাদিক যেখানে লাঞ্চিত হয়। সেখানে সাধারণ মানুষ কিভাবে আস্থা পাবে। সরকারী ভূমি অফিসের কাজের সেবায়। ডিজিটাল সুবিধা থেকে বঞ্চিত সাধারণ মানুষ চায় ঐ ভূমি সহকারী কর্মকর্তার দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি।

সরজমিনে গেলে জানা যায়- শরিফা বেগম শিউলী পেশায় সাংবাদিকতার কাজ করেন, রংপুরের স্থানীয় দৈনিক প্রথম খবর ও জাতীয় দৈনিক নবচেতনা পত্রিকায়। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ)এর কেন্দ্রীয় কমিটির মহিলা ও শিশু বিষয়ক সম্পাদক।

তিনি জানান- (১৯ মে ২২ইং)তারিখে অনলাইনে ক্রয়কৃত জমির নামজারির জন্য আবেদন করেন। সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে যথা সময়ে তিনি মোবাইল এসএমএস এর মাধ্যমে সদর ভূমি অফিসে নামজারির কাজ সম্পাদন করার জন্য জমির মূল কাগজপত্রসহ ভূমি কার্যালয়ে উপস্থিত হন।

কিন্তু ভূমি কর্মকর্তা রয়েছেন অফিসের কাজে বাহিরে। আর এমনটাই বক্তব্য শুনা যায় হরহামেশাই। পরে সদর ভূমি অফিসে যোগাযোগ করলে আবারো পরের দিন আসার কথা জানান তারা।

যথারীতি রংপুর সদর ভূমি অফিসে আমার নিজ নামীয় জমির নামজারির সকল কাগজপত্রাদি সহকারী ভূমি কমিশনার জায়িদ ইমরুল মোজাক্কিন আমার কাগজপত্র নিয়ে তার টেবিলে রেখে ধারাবাহিকভাবে
অন্যদের কাগজপত্র দেখতে থাকেন।

পরবর্তীতে আমার কাগজপত্র সিরিয়ালে আসলেও তিনি অন্যদের হাত থেকে কাগজ চেয়ে নিয়ে দেখতে থাকেন। এরই মধ্যে আমার জরুরী সংবাদ সংগ্রহের জন্য মোবাইলে কল আসতে থাকলে আমি কর্মকর্তাকে অনুরোধ করি। আমার নথিপত্র দেখার জন্য।

বিনীতভাবে অনুরোধ করা সত্ত্বেও হঠাৎ করে তিনি আমার উপর রাগান্বিত হন এবং বলেন চুপ করে বসে থাকেন, আপনি কিসের সাংবাদিক, ৬ মাস পর আপনার আবেদনের শুনানি হবে। আমি তাকে অনুরোধ করে বলি আপনি রাগ হয়ে কথা বলছেন কেন?

এতে তিনি আরো রাগান্বিত হয়ে পুনরায় উক্ত জমির কাগজপত্রাদি হাতে নিয়ে টেবিলের এক কোনায় ঝটকে রেখে দেন এবং আমার সাথে উত্তেজিত হয়ে সাংবাদিকদের নিয়ে বাজে মন্তব্য শুরু করেন।

এক পর্যায়ে তিনি আমার জমির নামজারি আগামী ৬ মাস পরে শুনানী হবে বলে জানান এবং আমার সহকর্মী সাংবাদিক রবিন চৌধুরী রাসেলসহ উপস্থিত সকলের সামনে অযৌক্তিক ও অকথ্য ভাষায় কথা বলেন এবং আমাকে রুম থেকে বের হয়ে যেতে বলেন।

একজন সহকারী ভূমি কর্মকর্তার এমন দুর্ব্যবহারে আমি ব্যথিত ও মর্মাহত হয়ে রুম থেকে বের হয়ে আসি। অকারণে আমার মত একজন সংবাদকর্মীর সাথে এমন দুর্ব্যবহার করলে সাধারণ মানুষ সেখানে কিভাবে আস্থা পাবে। প্রশাসনের এমন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গের এহেন আচরণে আমি মর্মাহত। আমি তার শাস্তির দাবি করছি।

অপর দিকে ঘটনাস্থলে থাকা সাংবাদিক রবিন চৌধুরী রাসেল বলেন- ঘটনার সময় আমি নিজে উপস্থিত ছিলাম, সহকারী ভূমি কমিশনার প্রথম থেকেই রাগ রাগ হয়ে কথা বলতেছিল। শিউলী আপু কিছু বলে নাই সহ্য করেই গেছেন।

পর পর রাগ দেখিয়ে কথা বলায় আপু বলছে আপনি রাগ দেখিয়ে কথা বলছেন কেন? এতে আরও রাগান্বিত হয়ে সাংবাদিক নিয়ে উল্টো পাল্টা ও অযৌক্তিক কথাবার্তা বলে খারাপ আচরণ করে রুম থেকে বের হতে বলেন।

সরকারী সেবা সহজে পাওয়ার জন্য যেখানে সরকার প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে সততার সাথে, সেখানে একজন ভূমি সহকারী কর্মকর্তার এমন আচরন জাতির কাছে লজ্জাজনক।

এর সঠিক তদন্ত করে বিচার হওয়া উচিত বলে আমি মনে করি।

একজন নারী সাংবাদিক লাঞ্চিত বিষয়ে কথা বললে রংপুর রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি রহমতুল্লাহ অপু বলেন- রংপুর উপজেলা সহকারী ভুমি কমিশনার জায়িদ ইমরুল মোজাক্কিন এর ব্যাপারে সংগঠনে লিখিত অভিযোগ পেয়ে আমরা সংগঠনের পক্ষথেকে বুধবার ২৮শে সেপ্টেম্বর ২২ইং জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ দাখিল করেছি।

সহকারী কমিশনারের ভূমি জায়িদ ইমরুল মোজাক্কিন কে দুটো মুঠোফোন থেকে ৮ বার কল দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এবিষয়ে জেলা প্রশাসক আসিব আহসান বলেন- আমি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি ভালভাবে খতিয়ে দেখছি। সত্যতা পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নিব।

সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

আর্কাইভ

SatSunMonTueWedThuFri
     12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31      
  12345
       
    123
       
   1234
262728    
       
293031    
       
  12345
2728     
       
    123
18192021222324
       
   1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031 
       
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930    
       
©  2019 copy right. All rights reserved © 71sangbad24.com ltd.
Design & Developed BY Hostitbd.Com
error: কপি করা যাবে না !!